Home / মিডিয়া নিউজ / ‘জয়ার সঙ্গে বন্ধুত্ব, প্রেম বা তার চেয়েও বেশি কিছু’

‘জয়ার সঙ্গে বন্ধুত্ব, প্রেম বা তার চেয়েও বেশি কিছু’

কলকাতার পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায় সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন অভিনেত্রী জয়া

আহসানের সঙ্গে তার সম্পর্ক বন্ধুত্ব, প্রেম বা তার চেয়েও বেশি কিছু। ১৮ এপ্রিল, বুধবার সংবাদ

মাধ্যম আনন্দবাজারে প্রকাশিত সাক্ষাৎকারে জয়া আহসান প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন সৃজিত।

সাক্ষাৎকারে জয়া প্রসঙ্গে জানতে চাইলে এই পরিচালক বলেন, ’জয়ার মতো অভিনেত্রী, জয়ার মতো মানুষ, জয়ার মতো নারী আমি খুব কম দেখেছি। এই সম্পর্ক বন্ধুত্ব, প্রেম বা তার চেয়েও বেশি কিছু।’

যদিও তিনি তার বিয়ে প্রসঙ্গে বলেন, ’কার সঙ্গে কবে হবে জানি না। তবে আমি বিয়ে করব ভেবেই প্রেম করতে চেয়েছি। এমনও হয়েছে, কোনো আবেগঘন মুহূর্তে কেউ বলে ফেলেছে, ’’কাস্টিং-টা কী হল?’’ তার ছিঁড়ে গেছে সেই দিন, প্রেম আর কাজ আমি জীবনেও গুলিয়ে ফেলিনি।’

এদিকে কিছুদিন আগে কলকাতায় জোর গুঞ্জন ছিল বাংলাদেশের নায়িকা জয়া আহসানের সঙ্গেও সৃজিত জমিয়ে প্রেম করছেন। কারণ তার সব ছবিতে জয়ার উপস্থিতি সেই গুঞ্জনকে জোরালো করেছিল।

এর আগে চলতি বছরের ১৭ জানুয়ারি আনন্দবাজারকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারেই তার ও পরিচালক সৃজিতের সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুলেছিলেন জয়া আহসানও। সে সময় অভিনেত্রী জানিয়েছিলেন, ’সৃজিতের সঙ্গে আমার সম্পর্কের খবর পুরোটাই গুজব। আমরা একসঙ্গে পথ চললে সেটা একটা বলার ব্যাপার ছিল। তিনি পশ্চিম বাংলার একজন গুণী নির্মাতা। তার সঙ্গে সব অভিনেতা-অভিনেত্রীরাই কাজ করতে চায়। আমিও চাই। এখানে ব্যক্তিগত কোনো সম্পর্ক নেই।’

জয়া-সৃজিতের চেনাজানা ২০১৫ সাল থেকে। ওই বছর সৃজিতের পরিচালনায় ’রাজকাহিনী’ ছবিতে রুবিনা চরিত্রে অভিনয় করেন জয়া। ১৯৪৭ সালের দেশ ভাগের কাহিনি নিয়ে নির্মিত হয়েছিল তারকাবহুল এ ছবিটি। সেই থেকেই জয়ার সঙ্গে সৃজিতকে জড়িয়ে রসালো প্রেমের গুঞ্জন শুরু। চলতি বছরে জয়া শুটিং করছেন সৃজিতের ’এক যে ছিল রাজা’ ছবির শুটিং। এই ছবিতে তার সহশিল্পীরা হলেন কলকাতার যিশু সেনগুপ্ত, অপর্ণা সেন, অঞ্জন দত্ত ও অনির্বাণ ভট্টাচার্য।

Check Also

‘আমার বিশ্বাস, পরীমনি চাইলে একদিন শাবানা হতে পারবে’

দেশের অন্যতম জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পরীমনি। আবেদনময়ী এই নায়িকার মধ্যে বাংলা চলচ্চিত্রের জীবন্ত কিংবদন্তি শাবানাকে খুঁজে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.