Home / মিডিয়া নিউজ / যেভাবে ১৫ কেজি ওজন কমালেন ঐন্দ্রিলা

যেভাবে ১৫ কেজি ওজন কমালেন ঐন্দ্রিলা

দীর্ঘ ১১ বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে ঐন্দ্রিলার সঙ্গে অঙ্কুশের। আর সেই সম্পর্ককে দুজনেই

অটুট থাকারই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আর তাদের সম্পর্কের খুনসুটি ও ঝগড়া-মারামারি, মনের ভাব

ভালোবাসার বিনিময় যেন তাদের সম্পর্কের মূল ইউএসপি। যেমন: অঙ্কুশ-ঐন্দ্রিলাকে সারাক্ষণ

মোটা বলে ঠাট্টা করতেন। খুব সহজভাবে মজার ছলে বিষয়টি দেখতেন ঐন্দ্রিলা।

তবে মাত্র ছয় মাসে অঙ্কুশের সেই ঠাট্টার মোক্ষম জবাব দিলেন ঐন্দ্রিলা। এই সময়ের মধ্যে ১৫ কেজি ওজন কমিয়েছেন নায়িকা! ছিপছিপে সম্মোহনী ঐন্দ্রিলাকে দেখে এখন মুগ্ধ তার প্রেমিক অঙ্কুশ।

মাত্র ছয় মাসে ১৫ কেজি ওজন কমিয়ে সবাইকে চমকে দিয়েছেন টলিউড নায়িকা তথা অভিনেতা অঙ্কুশ হাজরার প্রেমিকা ঐন্দ্রিলা সেন। আগে তার ওজন ছিল ৭১ কেজি। এখন ৫৬। বর্তমানের মেদহীন ছিপছিপে চেহারার ঐন্দ্রিলাকে দেখে অনুরাগীদের পাশাপাশি মুগ্ধ তার প্রেমিক অঙ্কুশও। কিন্তু কীভাবে এতো কম সময়ে ১৫ কেজি ওজন কমালেন অভিনেত্রী?

ঐন্দ্রিলা জানান, লকডাউনে বাড়িতে বসে ওজন বেড়ে যাচ্ছিল তার। তিনি বলেন, গত জুন মাস থেকে শরীরচর্চা শুরু করি। প্রথম দিকে খুবই কষ্ট হতো। মিষ্টি খাওয়া একেবারেই ছেড়ে দিই। অন্যান্য খাবারও খুব কম খেতাম। তার পরও প্রথম দুই মাস ওজন কমেনি। সেই দুই মাস কঠিন শরীরচর্চার জন্য নিজেকে প্রস্তুত করছিলাম।

শরীরচর্চার সঙ্গে খাওয়াতেও রাশ টানতে হয়েছিল তাকে। তবে মেনে চলেননি বাঁধাধরা কোনো ডায়েট। উপোসের পক্ষপাতী নন তিনি। তাই শরীরচর্চার প্রশিক্ষক তাকে দিনে খুব অল্প পরিমাণে ছয় বার খেতে বলেছিলেন। খাবারের তালিকায় বরাদ্দ ছিল, প্রতিদিন কুসুম ছাড়া ছয়টি ডিম সেদ্ধ। যেগুলো সকাল, দুপুর এবং রাতে দুটি করে খেতেন ঐন্দ্রিলা। দুপুরে সবজির স্যুপ, প্রোটিন শেক বা ফল। দিনে কয়েকবার করে শশা। রাতের খাবারে থাকত প্রোটিন শেক।

এভাবে কিছু দিন চলার পর দুপুরে অল্প পরিমাণ ভাত খাওয়ার অনুমতি পেয়েছিলেন ঐন্দ্রিলা। তবে তালিকা থেকে বাদ পড়েছিল ব্ল্যাক কফি ও জুসের মতো পানীয়। এভাবে চলেই ছয় মাসে ১৫ কেজি ওজন ঝরিয়েছেন ঐন্দ্রিলা।

Check Also

বুবলীকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না?

শাকিব খানের সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করে প্রশংসিত হয়েছেন চিত্রনায়িকা শবনম বুবলী। এই জুটির বক্স …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *