Home / মিডিয়া নিউজ / ফেসবুকে বেবিসিটার সমালোচনার জবাব দিলেন ফারুকী

ফেসবুকে বেবিসিটার সমালোচনার জবাব দিলেন ফারুকী

ইতোমধ্যে ফ্রান্সে ‘কান চলচ্চিত্র উৎসব-২০২২’ এর পর্দা উঠেছে। এবারের আসরে জনপ্রিয় অভিনেত্রী

নুসরাত ইমরোজ তিশা অভিনীত ‘মুজিব-দ্য মেকিং অব এ নেশন’ সিনেমার ট্রেলার প্রকাশিত হবে।

এ উপলক্ষে গত মঙ্গলবার (১৭ মে) সেখানে গেছেন তিনি।এ সফরে তিশার সঙ্গে রয়েছে তার চার মাসের মেয়ে ইলহাম। মেয়েকে দেখাশোনার জন্য রয়েছেন অভিনেত্রীর স্বামী জনপ্রিয় নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী। তবে ‘বেবিসিটার’ হিসেবে তার ফ্রান্স যাওয়া নিয়ে নানা মন্তব্য করেছেন নেটিজেনরা।

এ নিয়ে গতকাল বুধবার বিকেলে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে দীর্ঘ স্ট্যাটাস দিয়েছেন ফারুকী। তিনি লেখেন, ‘আমি অনলাইনে ছড়ানো কথাবার্তার উত্তর দেয়া বন্ধ করছিলাম অনেক আগে। কারণ, এটা হলো সময় ও এনার্জি নষ্টের মোস্ট প্যাথেটিক ওয়ে। এর ভালো দিক হচ্ছে জীবন শান্ত ও সুন্দর হয়। আর খারাপ দিক হচ্ছে, অনেক আজাইরা কথা বারবার উচ্চারিত হতে হতে সত্যের মতো রূপ ধারণ করে।’

প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে ফারুকী লেখেন, ‘এ নিয়ে বলছি। কারণ, এখানে আমার মেয়ে জড়িত। যখন আপনাকে কেউ বুঝিয়ে দেবে আপনি আপনার মেয়ের জন্য যথেষ্ট করছেন না। তখন কেমন রাগ লাগতে পারে বলেন?

তিনি লেখেন, ‘বেবিসিটিং কথাটার জোক নিয়ে ব্যাপারটা এতদূর গড়িয়েছে যে, কেউ কেউ আগ বাড়িয়ে শিক্ষাও দিচ্ছেন। বাচ্চা বড় করা মায়ের একা দায়িত্ব নয়। আপনি পিতৃতান্ত্রিকতা থেকে বের হয়ে আসেন। আই মিন সিরিয়াসলি পিপল!!! দুনিয়াটা এক আজব জায়গা হয়ে গেছে। এখানে যে কেউ যেকোনো বিষয়ে জ্ঞান দিতে পারে। আমার ইনবক্স প্রিন্ট করলে এটা মোটামুটি একটা টেক্সটবুক হয়ে যাবে।’

জনপ্রিয় এ নির্মাতা বলেন, ‘আমাদের ঘরে কি হয়, বাচ্চা বড় করার ক্ষেত্রে কার কি রোল- এসব না জেনেই আমরা শিক্ষকের ভূমিকায় বসে যাই। গাইজ, আমাদের দেশের অভিনেতা-অভিনেত্রীরা হলিউড বা এমন কি বলিউডের মতোও অর্থ বা সাপোর্ট সিস্টেম পান না। ফলে একজন অভিনেত্রী যদি সদ্য মা হন, তার জন্য কাজে ফিরতে অনেক সময় লাগে। কিন্তু তিশা চান না, সে কাজকর্ম থেকে অনেক দিন দূরে থাকুক। আমিও চাই না। ফলে ওর কোনো কাজ এলে আমি আমার কর্মকাণ্ড বন্ধ করে ইলহামকে অ্যাটেন্ড করতে চাই।’

কিন্তু মুশকিল হলো প্রোডাকশনগুলো এ বাড়তি হ্যাপা নেয়ার জন্য খুব যে তৈরি তা বলা যাবে না উল্লেখ করে ফারুকী বলেন, ‘তবু কাজের বা ট্যুরের কথা এলে তিশা বলে, আমাদের বেবিসিটার নিতে দিতে হবে।বেবিসিটারের জন্য ভ্যান, টিকিট বা হোটেলের ব্যবস্থা করতে হবে। যতদিন না ইলহাম কিছুটা শক্ত সামর্থ্য হচ্ছে। আমি সবসময় হাসিমুখে বলি, বেবিসিটার কোটায় আমাকে ইনক্লুড কর। তাই আমি যাচ্ছি।’

তিনি বলেন, ‘আর বাচ্চা বড় করার দায়িত্ব মায়ের একা এটা কোথায় পেয়েছেন? আমার আগের লেখাটা ধরে কেউ কেউ বলছেন, কেন আপনি নিজেকে হেল্পিং হ্যান্ড বলছেন? ভাইরে ভাই, জীবনে কিছুটা বিনয় ভালো। আমি ২৪ ঘণ্টা বাচ্চাকে অ্যাটেন্ড করলেও সেটা বড় করতে রাজী নই। আর করলেও আমার কাছে এ মুভির স্টারিং রোল অলওয়েজ মা। বাবা কেবল সাপোর্টিং রোলের ক্রেডিটই পাইতে পারে। ঈশ্বর আমাদের ধৈর্য দিন, আমিন।’

সূত্র: চ্যানেল ২৪

Check Also

অপু বিশ্বাসের সঙ্গে কাজ করতে চান মাহি

ঢাকাই ছবির জনপ্রিয় নায়িকা মাহিয়া মাহি। একাধিক ছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন তিনি। গতকাল (সোমবার) …

Leave a Reply

Your email address will not be published.