Home / মিডিয়া নিউজ / নায়ক হয়ে আসছেন মান্নার ছেলে সিয়াম!

নায়ক হয়ে আসছেন মান্নার ছেলে সিয়াম!

দীর্ঘ ১০ বছর বন্ধ থাকার পর আবারও মান্নার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ‘কৃতাঞ্জলী কথাচিত্র’ থেকে আবারও

চলচ্চিত্র নির্মাণ করার ঘোষণা দিয়েছেন নায়ক মান্নার স্ত্রী শেলী মান্না। আগামী ২৩ জুলাই ঢাকা

ক্লাবে অনুষ্ঠানের মাধ্যেমে ছবির পাত্রপাত্রীর সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হবে।

অন্যদিকে, চলচ্চিত্রপাড়ায় গুঞ্জন চলছে নায়ক মান্নার ছেলে এই ছবির মধ্যেমে চলচ্চিত্রে ফিরছেন। এসব বিষয় নিয়ে কথা বলেন শেলী মান্না।

শেলী মান্না বলেন, ‘আমার ছেলে সিয়াম ইলতিমাসতো চলচ্চিত্রেরই ছেলে। ছোট বেলা থেকে চলচ্চিত্রের পাশে থেকে বড় হয়েছে। তার চিন্তা-চেতনা সব কিছুই চলচ্চিত্র নিয়ে। যে কারণে সিয়াম চলচ্চিত্র করবে সেটাই স্বাভাবিক। তবে এই মুহূর্তে সে চলচ্চিত্রের সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে না। এখন সিয়াম দেশের বাইরে চলচ্চিত্র নিয়ে পড়াশুনা করছে। আগামী দুই বছরের মধ্যে তা শেষ করে দেশে ফিরবে। তার আগে চলচ্চিত্রের সঙ্গে তার যুক্ত হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। তাই এই মুহূর্তে তার নায়ক হওয়ার কথা শুধুই গুঞ্জন।’

দুই বছর পর সিয়াম কি নায়ক হয়ে আসবেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে শেলী মান্না বলেন, ‘এই বিষয়টা আসলে তার ওপর নির্ভর করছে। আমি যতটা দেখেছি অভিনয়ের চেয়ে নির্মাণের প্রতি তার আগ্রহটা বেশি। সে নির্মাতা হিসেবেই আসবে এটা আমি বলতে চাইছি না। বিষয়টা আসলে তার ওপরই নির্ভর করছে- সে কী করবে। তবে সিয়াম অবশ্যই চলচ্চিত্রে কাজ করবে।’

‘জ্যাম’ চলচ্চিত্র নিয়ে শেলী বলেন, ‘এই ছবির মধ্যে আমরা সমাজের কিছু চিত্র তুলে ধরব। জ্যাম আমাদের নিত্যসঙ্গী, বিশেষ করে আমরা যারা ঢাকায় বাস করি তারা শুধু জ্যামের জন্য বাড়তি সময় নিয়ে ঘর থেকে বের হই। কিন্তু এই জ্যামের কারণে একটি মানুষের জীবন বদলে যেতে পারে। ঘটে যেতে পারে এমন কিছু যা কিছুতেই পূরণ হওয়ার নয়। এ ধরনের একটি গল্প নিয়ে আমরা ছবিটি নির্মাণ করব। এই ছবির গল্প লিখেছেন প্রয়াত সাংবাদিক আহমদ জামান চৌধুরী। আর ছবিটি পরিচালনা করছেন নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুল।’

এফ আই মানিক ১০ বছর আগে নির্মাণ করেছিলেন চলচ্চিত্র ‘পিতা মাতার আমানত’। সেটাই ছিল ‘কৃতাঞ্জলী কথাচিত্র’ থেকে প্রযোজিত শেষ চলচ্চিত্র। মান্নার মৃত্যুর পর নতুন কোনো ছবি নির্মাণ করা হয়নি এই প্রযোজনা সংস্থা থেকে।

প্রতিষ্ঠানটি থেকে নির্মাণ করা হয়েছে ‘লুটতরাজ’, ‘লাল বাদশা’, ‘আব্বাজান’, ‘স্বামী স্ত্রীর যুদ্ধ’, ‘দুই বধূ এক স্বামী’, ‘মনের সাথে যুদ্ধ’, ‘মান্না ভাই’ ও ‘পিতা মাতার আমানত’।

Check Also

‘এখন মরলেও তৃপ্তি নিয়ে মরতে পারবো’

ঢাকাই সিনেমায় ষাটের দশক থেকেই সফল পদচারণা সুজাতার। ১৯৬৫ সালের রূপবান চলচ্চিত্রে অভিনয় করে পেয়েছিলেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.