Home / মিডিয়া নিউজ / নায়িকা হওয়ার আগে বখাটেরা শিস দিত : মাহি

নায়িকা হওয়ার আগে বখাটেরা শিস দিত : মাহি

ঢাকার চলচ্চিত্রে অন্যতম জনপ্রিয় নায়িকা মাহিয়া মাহি। রকমারি রম্য প্রকাশনায়

এক সাক্ষাৎকারে বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন। সাক্ষাৎকারটি

নিয়েছেন ফরিদুল ইসলাম নির্জন। সাক্ষাৎকারটি নিচের তুলে ধরা হলো।

বেশির ভাগ সিনেমায় নায়িকারা গরিব ছেলের প্রেমে পড়ে কেন?

— নায়ককে প্রেম দিয়ে বড়লোক করার আশায়।

বাজার করতে আপনার কেমন লাগে?

— খুব ভালো লাগে। সময় পেলেই যাই। কিন্তু মাহী আপু বলেই দাম বেশ বাড়তি রেখে দেয়।

সিনেমায় বখাটে ছেলেরা নায়িকাকে শিস দেয়। আপনার কি এমনটি কখনো হইছে?

— হ্যাঁ, হয়েছে। তবে সেটা নায়িকা হবার আগে, ছোটবেলায়।

এখন হয় না। তার মানে আপনার অ্যাকশনধর্মী সিনেমা দেখে কি তারা ভয় পেয়েছে?

— তাও হতে পারে। তারা ভাবছে আমি এখন রুখে দাঁড়াতে পারি।

নায়করাই সব সময় ফাইটিংয়ে জিতে কেন?

— কারণ নায়িকাদের দেখাতে হয়। নায়করা ভালো ফাইটিং পারে। তাকে যে কারও হাত থেকে রক্ষা করতে পারবে।

সিনেমায় নায়িকার গাড়ির সঙ্গে ধাক্কা লেগে নায়কের সঙ্গে প্রেম হয়। আপনার এমন কখনো হয়েছে?

— না। তার আর সুযোগ হয়নি। বাস্তবে এমন হলে হয়তো গাড়ি রেখে দৌড়াতে হবে।

আপনার সম্পর্কে গুজব আছে ঘরের মানুষকে নাকি টিভির রিমোট দেন না?

— ঘটনা সত্য। সে রিমোট নিলে একের পর এক চ্যানেল পরিবর্তন করতে থাকে। তাই ঘরের মানুষের কাছ থেকে রিমোট নিয়ে লুকিয়ে রাখি।

মশারি টানানো নিয়ে আবার কোনো কথা হয় না তো?

— না। আমরা তো মশারি টানাই না।

স্বামীর চোখে আপনি কেমন?

— বেশ ভালো। বেশ অগোছালো।

কোন জায়গা ঘুরতে ভালো লাগে।

— দেশের মধ্যে সিলেট। প্রিয় মানুষের এলাকা বলে কথা।

আপনার থেকেও কেউ ফেসবুকে বেশি লাইক পেলে কেমন লাগে?

— আমার আসলে কিছু মনে হয় না। লাইকের থেকে আমি দেখি কোন সিনেমা হলে কত মানুষ লাইন দিয়ে দাঁড়িয়ে আছে।

ফেসবুকে লাইক বাড়াতে কী করা উচিত?

— বেশি বেশি লাইকে আসা যেতে পারে। মেকআপ করে সুন্দর সুন্দর ছবি দিলেও কাজ হতে পারে।

আপনার সাক্ষাৎকার শেষ। এখন কিছু বলবেন?

— ভাই, দরজা এই দিকে। আসতে পারেন।

Check Also

‘এখন মরলেও তৃপ্তি নিয়ে মরতে পারবো’

ঢাকাই সিনেমায় ষাটের দশক থেকেই সফল পদচারণা সুজাতার। ১৯৬৫ সালের রূপবান চলচ্চিত্রে অভিনয় করে পেয়েছিলেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.